অসহায় বৃদ্ধাকে বাড়ী উপহার দিলেন-এসপি বিপ্লব কুমার সরকার

রংপুর প্রতিনিধিঃ রংপুর নগরীর ৩৩ নং ওয়ার্ডের বসুনিয়া পাড়ার বাসিন্দা সালমা বেগম (১০০) স্বামীকে হারিয়েছেন কয়েক বছর আগেই আর ৮ সন্তানের জননী। এই অসহায় বৃদ্ধাকে সন্তানরা ভালো ভাবে দেখাশুনা না করার কারণে অবস্থা করুন হয়ে পরে। করোনার সময় সালমা বেগমের অবস্থা আরো করুন হয়ে উঠে।

একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘উই আর বাংলাদেশ’ এই বৃদ্ধার করুণ অবস্থা তুলে ধরে ফেসবুকে পোস্ট দেন। আর এই পোস্ট দেখে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। রংপুর জেলা পুলিশের সম্মানিত অভিভাবক, মানবিক পুলিশ সুপার বিপ্লব কুমার সরকার মহোদয়।

আজ (১৯ আগষ্ট,২০২০)বুধবার দুপুরে ‘উই আর বাংলাদেশ’ এর আর্থিক সহযোগিতা ও জেলা পুলিশের তত্বাবধানে বৃদ্ধাকে একটি বাড়ী উপহার দেন। রংপুর জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার জনাব মোঃ আশরাফুল ইসলাম পলাশের সভাপতিত্বে বাড়ী হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রংপুর জেলা পুলিশ সুপার জনাব বিপ্লব কুমার সরকার।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে , অসহায় বৃদ্ধার স্বামী মারা গেছেন কয়েক বছর আগে। সালমা বেগম আট সন্তানের জননী। কোনো সন্তানেই তার ভালো-মন্দ খোঁজ খবর নেন না। বেশির ভাগ সময়ে খেয়ে না খেয়ে দিন পার করেন। তারপরেও চেয়ারম্যান, কাউন্সিলরের কাছ থেকে কোন প্রকার রেশন কার্ড, বয়স্ক ভাতা এবং বিধবা ভাতা পায়নি।

এসময় পুলিশ সুপার জনাব বিপ্লব কুমার সরকার বলেন, অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানো সওয়াবের কাজ। আমাদের সমাজে যারা বিত্তবান ও উন্নয়নমূলক সংস্থাগুলোর আছেন। আপনারা আপনাদের আশপাশে যত অসহায় ও নিম্নবিত্ত মানুষ আছে। আপনাদের সাধ্যমত তাদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করবেন।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন। জনাব আবু তৈয়ব মোহাম্মদ আরিফ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ-সার্কেল) রংপুর, জনাব মারুফ আহমেদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বি-সার্কেল) রংপুর এবং সহকারী পুলিশ সুপার (এসএএফ) জনাব আশরাফুল আলম পলাশ, রংপুরসহ, রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের কর্মকর্তা ও পুলিশ সদস্য বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *